গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে জয় পেয়েছে নেদারল্যান্ডস

সোমবার বাংলাদেশ সময় রাত ১০ টায় কাতারের আল থুমামা স্টেডিয়ামে মুখোমুখি হয় সেনেগাল ও নেদারল্যান্ডস। গুরুত্বপূর্ণ এই ম্যাচে সেনেগালকে ২-০ গোলে হারিয়েছে নেদারল্যান্ডস। এই জয়ে ইকুয়েডরকে টপকে গ্রুপের শীর্ষে উঠে এলো নেদারল্যান্ডস।

সেনেগাল আজকে মাঠে নেমেছিল দলের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড় সাদিও মানেকে ছাড়াই। দলের মূল ভরসা বায়ার্ন মিউনিখের ফরোয়ার্ড সাদিও মানে ফিবুলার ইনজুরির কারণে টুর্নামেন্ট থেকে ছিটকে পড়েছেন। বিশ্বকাপ শুরুর আগে সেনেগালের জন্য এটি ছিল বিরাট এক ধাক্কা। যদিও সেনেগালের খেলোয়াড়দের মাঠে খেলা দেখে মেজর এই খেলোয়াড়ের অভাব বোঝা যায়নি। তবে মানে থাকলে হয়তো প্রথমার্ধেই ম্যাচের ভাগ্য অনেকটা নির্ধারণ হয়ে যেত।

ম্যাচের শুরু থেকেই দু‘দলই গোলের জন্য সমানভাবে চেষ্টা করলেও কেউই গোলের দেখা পায়নি। বল দখলেও দু‘দল ছিল প্রায় সমান সমান। ৫৪ শতাংশ সময় বল দখলে রেখেছে ডাচরা, বিপরীতে সেনেগালের পায়ে বল ছিল ৪৬ শতাংশ সময়। বড় কোনো আক্রমণ করতে পারেনি কোনো দল। গোলপোস্ট অভিমুখে দুই দল মিলিয়ে ১১টি শট নিলেও একটি শট মাত্র অন টার্গেট ছিল। প্রথমার্ধ শেষে কোনো দলই গোলের দেখা পায়নি। ম্যাচের ফলাফল তাই দ্বিতীয়ার্ধের ওপরই নির্ভর করছিল।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেও দু‘দলই চেষ্টা করছিল প্রতিপক্ষের রক্ষণ ভেদ করতে। দু‘দল সুযোগও পেয়েছিল। ম্যাচের ৫৮ মিনিটে নেদারল্যান্ডস ও ৬০ মিনিটে খুব সহজ সুযোগ মিস করে দু‘দল। ম্যাচের ৬৫ মিনিটে আবারো বাধা পড়ে ডাচরা। এবার ডাচদের শট সেভ করেন সেনেগালের গোলকিপার এডৌয়ার্ড মেন্ডি। ম্যাচের ৮৪ মিনিটে বার্সালোনা তারকা ফ্র‍্যাঙ্কি ডি ইয়ং-এর এসিস্ট থেকে গোল করেন কোডে গাকপো। ম্যাচের অতিরিক্ত সময়ের একদম শেষে গোল করে নেদারল্যান্ডসের হয়ে লিড দ্বিগুণ করেন দলের মিডফিল্ডার ডেভি ক্লাসেন। এরপর আর কোনো গোল না হলে ২-০ ব্যবধানের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে লুইস ভন গালের শিষ্যরা।

এই জয়ে এ গ্রুপের সবার ওপরে আছে নেদারল্যান্ডস। দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে ইকুয়েডর। সেনেগাল আছে তৃতীয় স্থানে। আর স্বাগতিক কাতার রয়েছে পয়েন্ট টেবিলের সবার নিচে।

মন্তব্য করুন

Logo

© 2022 Dinkal24 All Rights Reserved.