একাত্তরের 'শকুনি' ও পঁচাত্তরের 'হায়েনার' বংশধরেরা এখনও সক্রিয়: প্রধানমন্ত্রী

বিজয়ের ৫১ বছর পূরণ হলেও দেশে এখনও একাত্তরের ‘শকুনি’ এবং পঁচাত্তরের 'হায়েনার' বংশধরেরা সক্রিয় আছে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

মহান বিজয় দিবস ২০২২ উপলক্ষে বৃহস্পতিবার জাতির উদ্দেশে দেওয়া এক ভাষণে তিনি এই কথা জানান।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, দেশে এখনও একাত্তরের ‘শকুনি’ এবং পঁচাত্তরের 'হায়েনার' বংশধররা সক্রিয় আছে। সুযোগ পেলেই তারা দন্ত-নখর বসিয়ে দেশটাকে ক্ষতবিক্ষত করে ফেলে। সাধারণ মানুষ ভালো আছে দেখলে এদের গায়ে জ্বালা ধরে। দেশি-বিদেশি ষড়যন্ত্রকারীরা সক্রিয় হয়ে উঠে। কিন্তু, বাংলাদেশের মানুষ এদের চিনে ফেলেছে। ষড়যন্ত্র করে আর তাঁদের বিভ্রান্ত করা যাবে না।

তিনি বলেন, আমাদের বিজয়ের ৫১ বছর পূরণ হলো। আমাদের অব্যাহত প্রচেষ্টা হলো জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নের দারিদ্র্য-ক্ষুধামুক্ত অসাম্প্রদায়িক সোনার বাংলাদেশ গড়ে তোলা। পঁচাত্তরের পর ২৯ বছর মুক্তিযুদ্ধ বিরোধী শক্তি রাষ্ট্র ক্ষমতায় অধিষ্ঠিত ছিল এবং তারা দেশের সম্পদ লুটে-পুটে খেয়ে দেশটাকে খোকলা বানিয়েছিল।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আসুন এবারের বিজয় দিবসে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উজ্জীবিত হয়ে সম্মিলিতভাবে শপথ নেই, সকল ষড়যন্ত্রের জাল ছিন্ন করে আমরা বাংলাদেশের উন্নয়ন অগ্রযাত্রাকে আরও এগিয়ে নিয়ে যাব। একটি সুখী-সমৃদ্ধ অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্ন পূরণ করবো।

মন্তব্য করুন

Logo

© 2023 Dinkal24 All Rights Reserved.