কোভিডে মৃত্যু, গুরুতর অসুস্থতা ৭০ শতাংশ কমেছে: চীন

চলতি মাসের প্রথমদিকের সর্বোচ্চ পর্যায় থেকে চীনে করোনাভাইরাস আক্রান্ত গুরুতর অসুস্থ রোগীর সংখ্যা ৭২ শতাংশ এবং হাসপাতালে কোভিড-১৯ রোগীদের মধ্যে দৈনিক মৃত্যুর সংখ্যা ৭৯ শতাংশ কমেছে বলে কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে। বুধবার চীনের সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোল এন্ড প্রিভেনশনের (সিডিসি) ওয়েবসাইটে এ তথ্য জানানো হয়েছে। খবর রয়টার্সের


বার্তা সংস্থা রয়টার্স বলছে,এ পর্যন্ত দেশটির ১৪০ কোটি জনসংখ্যার ৮০ শতাংশ করোনায় সংক্রমিত হয়েছে, চীনের একজন বিশেষজ্ঞ এমনটি জানানোর পর কর্তৃপক্ষ এসব তথ্য প্রকাশ করেছে।

তিন বছর পর ডিসেম্বরের শুরুতে চীন হঠাৎ করে তাদের কঠোর জিরো-কোভিড নীতি থেকে সরে আসে। এরপরই বিশ্বের সবচেয়ে জনবহুল দেশ জুড়ে সংক্রমণ বেড়ে যায়।

যদিও কর্মকর্তারা বলেছেন বলছেন, সংক্রমণ শীর্ষে পৌঁছেছে ,কিন্তু কিছু বিশেষজ্ঞ বলছেন চলমান চন্দ্র নববর্ষের ছুটিতে পরিবারের সঙ্গে মিলিত হওয়ার পর গ্রামাঞ্চলে সংক্রমণ বাড়তে পারে।

সিডিসি জানিয়েছে, গত ৪ জানুয়ারি চীনে গুরুতর অসুস্থ রোগীর সংখ্যা সর্বোচ্চ ১ লাখ ২৮ হাজারে পৌঁছেছিল। ২৩ জানুয়ারি তা কমে ৩৬ হাজারে নেমে এসেছে।

এদিকে, হাসপাতালগুলিতে মৃত্যুর সংখ্যা ৪ জানুয়ারিতে দৈনিক সর্বোচ্চ ৪ হাজার ২৭৩ জনে পৌঁছেছিল। ২৩ জানুয়ারি মৃতের সংখ্যা ৮৯৬জনে নেমেছে।  

জ্বর নিয়ে ক্লিনিকগুলিতে আসা রোগীর সংখ্যা ২২ ডিসেম্বর সর্বোচ্চ ২৮ লাখ ৬৭ হাজার ছিল। ২৩ জানুয়ারিতে তা কমে ১ লাখ ১০ হাজারে নেমেছে।

তখন নতুন সংক্রমণের সংখ্যা ‘দৈনিক ৭০ লাখেরও বেশি ছিল’ এবং‘জ্বর নিয়ে বর্হিবিভাগে আসা রোগীর সংখ্যা শীর্ষে পৌঁছে ২৮ লাখ ৬৭ হাজার হয়েছিল।

১২ জানুয়ারি দেশটির কর্তৃপক্ষ ঘোষণা করেছিল, চীন কঠোর জিরো-কোভিড নীতি বাতিল করার পর থেকে হাসপাতালগুলোতে কোভিড আক্রান্ত প্রায় ৬০ হাজার লোকের মৃত্যু হয়েছে। কিন্তু কিছু বিশেষজ্ঞরা বলছেন এ সংখ্যা আরও বেশি হবে। কারণ বাড়িতে মারা যাওয়া রোগীদের এর মধ্যে ধরা হয়নি। চিকিৎসকরা বলছেন,মৃত্যুর কারণ হিসেবে কোভিড উল্লেখ করতে তাদেরকে নিরৎসাহিত করা হয়েছে।

মন্তব্য করুন

Logo

© 2023 Dinkal24 All Rights Reserved.