রাজনীতিতে সম্পৃক্ততার কথা স্বীকার করলেন পাকিস্তানের বিদায়ী সেনাপ্রধান

পাকিস্তানের সামরিক বাহিনীর বিদায়ী প্রধান রাজনীতিতে সম্পৃক্ততার কথা স্বীকার করেছেন।

বুধবার এক বক্তব্য প্রদানকালে তিনি স্বীকার করেন যে তার শক্তিশালী প্রতিষ্ঠানটির জাতীয় রাজনীতিতে ‘অসাংবিধানিক’ হস্তক্ষেপ বার বার প্রতিষ্ঠানটিকে জনগণের সমালোচনার সম্মুখীন করেছে।

জেনারেল কামার জাভেদ বাজওয়া, যিনি আগামি সপ্তায় অবসর নিচ্ছেন, রাওয়ালপিন্ডিতে সামরিক বাহিনীর সদর দফতরে নিহত সৈন্যদের পরিবারের উদ্দেশ্যে দেয়া ভাষণে এ কথা বলেন। ভাষণটি জাতীয় টেলিভিশনে সম্প্রচার করা হয়।

৬২ বছর বয়সী জেনারেল ক্ষমতাচ্যূত প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের এই দাবিকে ‘ভূয়া ও মিথ্যা’ বলে নাকচ করে দিয়েছেন যে এ বছর এপ্রিল মাসে তার সরকারকে ক্ষমতাচ্যূত করার পেছনে যুক্তরাষ্ট্রের ভূমিকা ছিল।

বাজওয়া বলেন, ‘দেশের সেবায় উদয়াস্ত ব্যস্ত আমাদের সেনাবাহিনী, বার বার সমালোচনার সম্মুখীন হচ্ছে। আমি মনে করি এর প্রধান কারণ, গত ৭০ বছরে রাজনীতিতে সেনাবাহিনীর হস্তক্ষেপ, যা কি-না অসাংবিধানিক । সুতরাং গত বছর ফেব্রুয়ারিতে সেনাবাহিনী অনেক ভেবে চিন্তে এই সিদ্ধান্ত নেয় যে তারা ভবিষ্যতে আর কখনই রাজনৈতিক বিষয়ে হস্তক্ষেপ করবে না। আমি আপনাদের নিশ্চয়তা দিতে পারি যে আমরা এ ব্যাপারে কঠোরভাবে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।’

বাজওয়া অবশ্য এ বিষয়টির ব্যখ্যা দেননি যে কি কারণে সেনাবাহিনী রাজনীতি থেকে নিজেদের সরিয়ে আনছে, যেখানে পাকিস্তানের ৭৫ বছরের ইতিহাসে নির্বাচিত সরকারের বিরুদ্ধে চারবার সামরিক অভূত্থান হয়েছে যার ফলে তিন দশকেরও বেশি সময় ধরে সেখানে স্বৈরতান্ত্রিক শাসন চলেছে।

সমালোচকরা এ ব্যাপারে সংশয় পোষণ করেন যে জাতীয় রাজনীতিতে সামরিক বাহিনী কি সত্যি সত্যি তাদের হস্তক্ষেপ বন্ধ করবে।

ওয়াশিংটনের উইলসন সেন্টারে দক্ষিণ এশিয়া ইনস্টিটিউটের পরিচালক মাইকেল কুগেলম্যান বলেন, ‘সেনাবাহিনকে রাজনীতি থেকে বেরিয়ে আসার ব্যাপারে বাজওয়ার বক্তব্য সম্পর্কে আমার সংশয় আছে।’

গণমাধ্যমে দেয়া এক লিখিত মন্তব্যে তিনি বলেন, ‘পাকিস্তানের রাজনীতির সাথে এই প্রতিষ্ঠান এতটাই সম্পৃক্ত যে এ রকম পরিবর্তন সাধন করা প্রায় অসম্ভব।’

পাকিস্তানি রাজনীতিকরা দীর্ঘ দিন ধরেই শক্তিশালী সেই প্রতিষ্ঠানের অনুকূলে না থাকলে নির্বাচিত সরকারগুলোকে সরিয়ে দিতে সামরিক বাহিনীর ভূমিকাকে দোষারোপ করে আসছেন।

সূত্র : ভয়েস অফ আমেরিকা

মন্তব্য করুন

Logo

© 2022 Dinkal24 All Rights Reserved.